জন্মদিনে নেতাকর্মী ও শুভাকাংখীদের ভালোবাসায় সিক্ত মেহেদী রুমী

আপনাদের এই ভালোবাসা আমার জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক ।। বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি এবং দৈনিক হাওয়া পত্রিকার সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী জন্মদিনে দলীয় নেতাকর্মী, ভক্ত,শুভাকাংখীদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন ।

গতকাল বৃহস্পতীবার ছিল প্রবীণ এই রাজনীতিবীদের ৬৯তম জন্মদিন। সকাল থেকেই ভক্ত-শুভাকাংঙ্খীরা ফুলের শুভেচ্ছা জানায়। বিকাল থেকেই জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আনন্দঘন পরিবেশে কেক কাটার মধ্যদিয়ে জন্মদিন পালন করা হয়। এর মধ্যে জেলা বিএনপির পক্ষে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন এবং খোকসা উপজেলা বিএনপি, কুমারখালী উপজেলা বিএনপি, মিরপুর উপজেলা বিএনপি, জেলা সেচ্ছাসেবক দল, জেলা কৃষকদল, জেলা ছাত্রদল, ভেড়ামারা উপজেলা যুবদল এর নেতাকর্মীরা পৃথক পৃথক ভাবে ফুল দিয়ে এবং কেক কেটে মেহেদী রুমীকে শুভেচ্ছা জানান। এছাড়া সামাজীক, সাংগঠনিক ও ব্যক্তিগতভাবে মেহেদী রুমীকেকে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন একাধীক সংগঠন। শুভেচ্ছা গ্রহণ ও কেক কাটা পূর্বে মেহেদী রুমী বলেন, আপনাদের এই ভালোবাসা আমার জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি। আর আমি জাতীয়তাবাদী রাজনীতির পথ ধরেই এতদিন চলেছি, সামনের দিনগুলোতেও এমনি ভাবেই চলতে চাই। আর আপনাদের ভালোবাসায় এভাবেই পথ চলে সমাজের জন্য কাজ করতে চাই, এটাই আমার প্রত্যাশা। তিনি বলেন, আমার শ্রদ্ধেয় বাবা মরহুম মাস-উদ-রুমীর মত আমিও জনগনের জন্য কাজ করেছি, দেশকে ভালোবেসেছি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন খোকসা উপজেলা বিএনপির সভাপতি সৈয়দ আমজাদ আলী, মিরপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হক, পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক ইব্রহীম আলী, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম রিন্টু, আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড.শামীম উল হাসান অপু, খন্দকার শামসুজ্জাহিদ, যুব বিষয়ক সম্পাদক মেজবাউর রহমান পিন্টু, কুমারখালী থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আল-কামাল মোস্তফা, জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি অহিদুল ইসলাম সাবু, জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আব্দুল হাকিম মাসুদ, জেলা কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক মোকারম হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল ইসলাম সবুজ, মিরপুর উপজেলা কৃষকদলের সভাপতি আনসার আলী, কুমারখালী থানা যুবদলের সভাপতি এ্যাড.শাতীল মাহমুদ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মাহফুজুর রহামান মিথুন, সাধারণ সম্পাদক এসআর শিপন বিশ্বাস, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাব্বী, সাংগঠনিক সম্পাদক রোকনুজ্জামান রাসেল, শহর ছাত্রদলের যুগ্ম-সম্পাদক সাগির কৌরাইশী, আমলা সরকারী কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার নিশাত, শহর ছাত্রদলের ইমরান আহমেদ নিশান, ফয়সাল আহমেদ সজল, অন্তুর প্রমুখ।

উল্লেখ্য ১৯৫২ সালের এই দিনে কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার কমলাপুড়ে একটি সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে তিনি জন্ম প্রহণ করেন। কুষ্টিয়ার বর্ণঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী সর্বজন শ্রদ্ধেয় বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, সমাজ সেবক, কুমারখালী-খোকসা থেকে নির্বাচিত প্রাক্তন সংসদ সদস্য, জেলা উন্নয়ন সমš^য়কারী ও জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সৈয়দ মাছ-উদ রুমীর ৫ম পুত্র সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী। পারিবারিক ভাবেই রাজনৈতিক পরিবেশের মধ্যদিয়ে বেড়ে উঠেন। রাজনীতির শুরুতে মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর অনুসারী হিসাবে ছাত্র জীবনে বিপ্লবী ছাত্র ইউনিয়নের মাধ্যমে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন। ১৯৭৮ সালে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান তাকে কুষ্টিয়া জেলা যুবদলের আহŸায়ক মনোনিত করেন। পরবর্তিতে ১৯৭৯ সালে জেলা যুবদলের সভাপতি নির্বাচিত হন। তিনি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দীর্ঘদিন সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সভাপতি হিসাবে আন্দোলন সংগ্রামের অগ্রভাগে থেকে নেতৃত্ব প্রদান করে যাচ্ছেন। খুলনা বিভাগের বিএনপির অন্যতম এই নেতা জাতীয় সংসদ একাধীকবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে কুষ্টিয়া-৪ কুমারখালী খোকসা আসনের মানুষের প্রতিনিধিত্ব করেছেন এবং জাতীয় সংসদের অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থানীয় কমিটির চেয়ারম্যানের দ¶তার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। এদিকে জন্মদিনে তার নির্বাচনী এলাকা কুমারখালী-খোকসার বিএনপির নেরতৃবৃন্দ ও জনগন মেহেদী রুমীর দীর্ঘায়ু কামনা করেছেন।

আলোচিত খবর

error: Content is protected !!