নির্জন যাত্রী

মাসুদ চয়ন

 

শিশিরস্নাত নির্জন সন্ধ্যা নামে;
পার্ক হতে শহরের কোলাহল উঠে গেছে ঘরে
পাখিরাও নেই সাদা আলোর সূর্যটাও মিলিয়ে
গেছে সময়ের শ্লোগানে
পথের দূরত্ব মাপে পথিক মনে মনে
যে পথ ফুরায়না কখনো
যে পথ শেষ সীমান্তে গিয়ে আবারও শুরু হয়
চেনাজানা কেউ নেই এই শহরে
ফুটপাতে নিবাস বানানো স্বপ্ন দ্রষ্টারা হয়ে
ওঠে ক্ষণিকের যাপন সঙ্গী
রাত ঘন হলে নেমে আসে নক্ষত্র শোরগোল
সেই অদূরেই চেয়ে থাকে চোখ
সারারাত ঘুম আসেনি-
মাটির জমিনে কিছু মানুষ সত্যিই একা
নির্জন আকাশের মতো একা!
পরদিন ভোর হলে শুরু হয় উদ্দেশ্যহীন
যাত্রা
একা একা বেঁচে থাকে যারা পার্থিব জগতে
তার উদ্দেশ্যগুলো রক্তাক্ত করে দেহ মন
প্রান
তার স্বপ্ন যেনো বাসি পিপাসা
ইচ্ছে যেনো অযাচিত অশোভন গল্প
সে শুধু মনে মনে ভেবে নেয় জীবনের
অগ্রযাত্রা
যেখানে কেউ কোনো কালে তাকে চিনবেনা
নিতান্তই উদ্দেশ্য বদলায় গন্তব্য বদলায়
যাত্রা বদলায়
শুধু স্মৃতি হয়ে থেকে যায় ক্ষণিকের
প্রিয়জনেরা
জীবন বিশ্ব ভ্রমনে হয়েছে নিগুঢ় একা একা
একা একা

আলোচিত খবর

error: Content is protected !!