কুষ্টিয়া পৌর নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে সাহানাজ সুলতানা বনি

মানুষের প্রতি ভালোবাসা ও সেবার দৃঢ় প্রত্যয়ে সাহানাজ সুলতানা বনি

ভয়েস অফ কুষ্টিয়া ।। আসন্ন কুষ্টিয়া পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে উৎসাহ এবং উদ্দীপনার শেষ নেই ভোটারদের মাঝে । বিশেষ করে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর নিয়ে মানুষের কৌতূহল একটু বেশি । কুষ্টিয়া পৌরসভার ১-২-৩ নাম্বার ওয়ার্ডে মোট চারজন মহিলা কাউন্সিলর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন । এর মধ্যে বর্তমান কাউন্সিলর এবং কাউন্সিলর পদপ্রার্থী শাহনাজ সুলতানা বনি দর্শক জরিপে সবার থেকে এগিয়ে রয়েছেন । তিনি এবার চশমা মার্কা প্রতীক নিয়ে কুষ্টিয়া পৌরসভার ১-২ ও ২ নং  ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ।

মঙ্গলবার ১২ জানুয়ারী আসন্ন কুষ্টিয়া পৌর নির্বাচনে, পৌর ১,২ ও ৩ এর সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী এবং বর্তমান কাউন্সিলর সাহানাজ সুলতানা বনি এর নেত্রীত্বে বিশাল র্যালি ১নং কমলাপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আয়োজনে নৌকার প্রচার প্রচারণায় অংশগ্রহণ করে।নির্বাচনের অংশগ্রহণের পর থেকে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ বিভিন্নভাবে তাকে উৎসাহিত করে চলেছে । এর মধ্যে কুষ্টিয়া শহরতলীর মঙ্গলবাড়িয়া এলাকার সেলিম আহমেদ নামের এক যুবক শাহনাজ সুলতানা বনি কে উদ্দেশ্য করে বলেন “আম্মাজান !!! আপনার জয় কোন মানুষ ঠেকাতে পারবে না “ইনশাআল্লাহ্” ।

জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী এই নেত্রী, শুধু নিজের জন্যই নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন নাই । তিনি আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী আনোয়ার আলীর জন্য নৌকা মার্কা প্রতীকের সমানতালে নির্বাচনী প্রচারণা করে যাচ্ছেন ।

সাহানাজ সুলতানা বনি বিগত ৫ বছর কাউন্সিলর হিসেবে নিজের সবটুকু ঢেলে দিয়েছেন কুষ্টিয়া পৌরসভার ১-২-৩ নাম্বার ওয়ার্ড বাসীর জন্য । তিনি এলাকার যুবসমাজকে মাদকের মরণ থাবা থেকে বিরত রাখতে এলাকার বিভিন্ন মহল্লায় যুবক এবং কিশোরদের খেলাধুলার ব্যবস্থা করেছেন । এবারের শীত মৌসুমে তিনি কমলাপুর সহ ১-২ ও ৩ নাম্বার ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে ছেলেদের ব্যাডমিন্টন খেলার জন্য নিজ অর্থায়নে ব্যবস্থা করে দিয়েছেন ।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অবিচল, মাটি ও মানুষের প্রতি অকৃত্রিম ভালবাসা ও সেবার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে মানুষের ভালবাসার ডাকে সাড়া দিয়ে তিনি আবারও এই পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন। নারী কাউন্সিলর হিসেবে তিনি ব্যাপক কাজ করেছেন। শুধু তাই নয়, করোনাকালীন সময়ে অনেক কর্মহীনদের বাড়ীতে বাড়ীতে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সহ, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবাব ও মাস্ক বিতরণ করেছেন।সাহানাজ সুলতানা বনি জানান, আবারও বিজয়ী হলে নিরাপদ, নারীবান্ধব ওয়ার্ড গড়ে তোলার লক্ষ্যে তিনি কাজ করবেন, বর্তমানে নারীরা বিভিন্ন ধরনের পেশায় যুক্ত থাকায় গতিশীলতা বেড়েছে। তবে নারীরা রাস্তাঘাটে গণপরিবহন, কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার অভাবে বিভিন্ন সহিংসতার শিকার হচ্ছেন। তিনি সকল নারীদের অধিকার প্রাপ্তিতে, কর্মজীবী নারী-শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য কাজ করবেন।

তিনি বলেন, কর্মক্ষেত্রে সব জায়গায় সমাজের সর্বস্তরে নারীদের সমান অংশ গ্রহণ নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার। কিন্তু নারীদের সাফল্যের জন্য নারীর প্রতি সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের জন্য নারীর নিজের চিন্তা চেতনাকে বিকশিত করতে হবে। নিজেদের মানুষ হিসেবে ভাবতে হবে। বাংলাদেশ কে সোনার বাংলা গড়তে নারী-পুরুষ সবাইকে সমানভাবে কাজ করতে হবে। কুষ্টিয়া শহরের আমার ওয়ার্ডের প্রতিটি মানুষই আমাকে ভালবাসে, স্নেহ করে। আমি কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছি।

তাদের সুখে দুখে সবসময় তাদের পাশে ছিলাম আছি এবং থাকবো। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপির এই কুষ্টিয়ার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারও নির্বাচন নেমেছি এবং নির্বাচনী মাঠে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। আমি আশা করছি এবারের নির্বাচনেও ভোটাররা আমাকে বিপুল ভোটে অবশ্যই মুল্যায়ন করবেন।

আলোচিত খবর

error: কপি করা যাবে না -ধন্যবাদ